মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C

রাজশাহী কলেজ

১৮৭৩ সালে স্থাপিত রাজশাহী কলেজ ব্রিটিশ আমল থেকেই শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠের মর্যাদা পেয়ে এসেছে। বিখ্যাত এই কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল বরেন্দ্র অঞ্চলের জমিদারদের উদ্যোগে। রাজশাহী শহরের ইতিহাসের সঙ্গে অঙ্গাঙ্গিভাবে জড়িত এই কলেজের ইতিহাস। ১৯৩৩ সালে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েরা পড়ার সুযোগ লাভ করে এ কলেজে। দুবলহাটীর রাজা হরলাল রায় বাহাদুর এর আর্থিক সহায়তায় রাজশাহী কলেজ ১৮৭৩ সালে স্থাপিত হয়। ১৮৭৩ সালে এপ্রিলের ১ তারিখে রাজশাহী জেলা স্কুলে (বর্তমান কলেজিয়েট স্কুল) এফএ (ফার্স্ট আর্টস) শ্রেণী চালুর মাধ্যমে এর কার্যক্রম শুরু হয়। হরগোবিন্দ সেন এই কলেজের প্রথম অধ্যক্ষ ছিলেন। ১৮৭৭ সালের অক্টোবর মাসে স্নাতক কলেজ হিসেবে স্বীকৃতি পায় এবং ১৮৭৮ সালে স্নাতক কোর্স চালু হয়। কলেজের প্রথম ভবন (বর্তমান প্রশাসনিক ভবন) নির্মাণ করা হয় ১৮৮৪ সালে। ১৯০২ সালে পুঠিয়ার রাণী হেমন্তকুমারী তাঁর নামে একটি হোস্টেল এবং মহারাণী হেমন্তকুমারী সংস্কৃত কলেজ স্থাপন করা হয়। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন স্নাতকোত্তর কলেজ হিসেবে ১৮৮১ সালে এম.এ. কোর্স এবং ১৮৮৩ সালে আইন কোর্স পরিচালনার অনুমতি লাভ করে। এ কলেজে আই.কম, বি.কম (পাস) এবং বি.কম (সম্মান) কোর্স চালু হয় যথাক্রমে ১৯৫২, ১৯৫৪ এবং ১৯৬১ সালে। ১৯৯৬ সালে এ কলেজে উচ্চ মাধ্যমিক কোর্সে পাঠদান বন্ধ করে দেয়া হয় এবং তা পুনরায় ২০১০ সালে তা চালু করা হয়। বর্তমানে এ কলেজে ১৯টি বিষয়ে সম্মান এবং ২১টি বিষয়ে স্নাতকোত্তর কোর্স চাল আছে।